Movavi Video Editor Plus 21.0.0 Portable । মুভ-আভি ভিডিও এডিটর প্লাস ২১.০.০ পোর্টেবল

মুভ-আভি ভিডিও এডিটর একটি শক্তিশালী ভিডিও এডিটর। এটি একটি উইনডোজ সফটওয়্যার। এটি শক্তিশালী হলেও এর ব্যবহার খুবই সহজ। এর ব্যবহারে ভিডিওর গুনগতমানের কোনো পরিবর্তন করা ছাড়াই ভিডিও আলাদা করা যায়। এই আলাদা অংশকে আবার জোড়া লাগানো যায়। এর মাধ্যমে ভিডিওতে অডিও ফাইল যোগ করা যায়। এছাড়া ভিডিওর টাইটেল পরিবর্তনসহ বিভিন্ন ফিল্টার ও ইফেক্ট যোগ করা যায়। এসব ফিল্টার ও ইফেক্ট ভিডিওর প্রঞ্জলতা বাড়াতে সাহায্য করে। এমন আরো অসংখ্য ফিচারের সমন্বয়ে তৈরি হয়েছে মুভ-আভি ভিডিও এডিটর।

এক নজরে কিছু ফিচার:

  • ক্যামেরা থেকে ভিডিও অথবা ছবির রেকর্ড কম্পিউটারে পরিবহন করে।
  • ওয়েবক্যাম থেকে ভিডিও ফুটেজ নিয়ে কাজ করে। মাইক্রোফোন থেকে অডিও রেকর্ড করতে পারে।
  • অডিও এবং ভিডিওকে এভিআই, মোভ, এমপি৪, এমপি৩, ডাব্লিওএমএ ও অন্যান্য ফর্মেটে আপলোড করে।
  • ছবি ও অন্যান্য গ্রাফিক ফাইল যোগ করে।
  • ভিডিওর দিক পরিবর্তন করে। ভিডিওকে কাঁটা বা ক্রপ করে। এছাড়া অপ্রয়োজনীয় অংশ বাদ দিতে সাহায্য করে।
  • ১০০ টিরও বেশি স্টাইলিশ ট্রানজিশন ভিডিও ক্লিপ অথবা স্বতন্ত্র ফ্রেমে যোগ করতে পারে।
  • ভিডিও উজ্জ্বলতা, বৈসাদৃশ্য এবং অন্যান্য রঙ এর পরিবর্তনের মাধ্যমে ভিডিওর গুনগত মানের পরিবর্তন করতে পারে।
  • তীক্ষ্ণতা (Sharpness) সামঞ্জস্য রক্ষা করে।
  • ম্যাজিক ইনহেন্সের দ্বারা ভিডিওর মান স্বয়ংক্রিয়ভাবে উন্নত করতে সাহায্য করে।

এখানেই কি শেষ…? না এখনেই শেষ নয়। এছাড়া ভিডিওকে দিতে পারবেন স্পেশাল ইফেক্ট। যেমন: হলিউডের ম্যট্রিক্স-এর মত ইফেক্টের মজা নিতে পারবেন। এছাড়া স্ল মোশন, ক্রোমাকি তো থাকছেই।

পরিশেষে, আপনার মাস্টারপিসের এডিট শেষে যদি শেয়ার করতে চান। তবে সহজেই শেয়ার করতে পারেন ইউটিউব, ফেসবুক অথবা ভিমিওতে।

অন্যান্য তথ্য:

  • সাল:২০২০
  • সংস্করণ: ২১.০.০
  • সিস্টেম: উইন্ডোজ এক্সপি / ভিস্তা /৭ /৮ /৮.১ /১০
  • ধরন: রার
  • আকার: ১৭৪ এমবি
  • পাসওয়ার্ড: portablesoftwarebd.com